বরিশাল লাইভ

ঢাকা, আগস্ট ৩০, ২০১৫

প্রকাশ : আগস্ট ৩০, ২০১৫ , ১০:১৫ অপরাহ্ণ
বরিশালে মেয়র ও ২১ আওয়ামীলীগ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা

যুবলীগ সদস্য সলিল গুহ পিন্টুকে কুপিয়ে হত্যা চেষ্টার ঘটনায় গৌরনদী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক পৌর মেয়র হারিছুর রহমান হারিছসহ আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসহযোগী সংগঠনের ২১ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। রোববার পিন্টুর মা তাপসী রানী গুহ বাদি হয়ে বরিশালের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে এই মামলা দায়ের করেন। মামলায় হারিছসহ ১৬ জনের নাম উল্লেখ এবং অজ্ঞাত পরিচয়ের ৫ জনকে আসামী করা হয়। আদালতের ভারপ্রাপ্ত বিচারক তরুন বছার মামলাটি আমলে নিয়ে গৌরনদী থানার ওসিকে এজাহারভূক্ত করে তদন্তে নির্দেশ দেন। মামলায় পৌর মেয়র হারিছ ছাড়াও যাদের নামীয় আসামী করা হয়েছে তারা হলো উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক সাবেক পৌর কাউন্সিলর জামাল হোসেন বাচ্চু, যুবলীগের আল-আমিন হাওলাদার ওরফে ট্যারা আল-আমিন, দেলোয়ার হাওলাদার, ছাত্রলীগকর্মী জিয়া হাওলাদার, শিমুল আকন, জুলহাস সরদার, রাসেল হাওলাদার, রিপন বেপারী, দুলাল গোমস্তা, রায়হান বেপারী, মামুন বেপারী, রাশেদ খান, কামাল খান, সুমন সরদার, আল-আমিন ওরফে কালা আল আমিন এবং সুমন চক্রবর্তী। মামলার এজাহারে বাদি উল্লেখ করেন, তার বড় ছেলে মাহিলাড়া ইউপি

চেয়ারম্যান সৈকত গুহ পিকলু’র সাথে স্থানীয় আওয়ামী লীগে প্রতিপক্ষের সাথে রাজনৈতিক দ্বন্দ্ব চলে আসছে। গৌরনদীতে একচ্ছত্র আধিপত্য বিস্তারের উদ্দেশ্যে মেয়র হারিছুর রহমান হারিছের নির্দেশে আসামীরা বাদির ছোট ছেলে সলিল গুহ পিন্টুকে হত্যার উদ্দেশ্যে গত ১৬ আগস্ট সন্ধ্যায় গৌরনদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সংলগ্ন হান্নানের চায়ের দোকানের সামনে হামলা চালিয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে মাথা, পা ও দুই হাতসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে উপর্যপুরী কুপিয়ে জখম করে। তাকে উদ্ধার করতে গেলে মাসুদ সরদার নামে আরো একজনকে কুপিয়ে আহত করে তারা। একপর্যায়ে পিন্টুকে মৃত ভেবে ফেলে চলে যায় হামলাকারীরা। গুরুতর আহত পিন্টুকে প্রথমে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতাল এবং অবস্থার অবনতি ঘটলে ১৯ আগস্ট ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ১নং আসামী হারিছ বাহিনীর প্রধান হারিছের বিরুদ্ধে জাতির পিতা ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি এবং সরকারি অফিস, গ্রাম আদালত ভাংচুর মামলা রয়েছে। যার বাদী সৈকত গুহ পিকলু। ২নং আসামী ট্যারা আল-আমিনের নামে বোমা হামলা, সংখ্যালঘুদের জমি দখল ও ডাকাতি, সন্ত্রাসীসহ ২০টি মামলা রয়েছে বলে মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়।

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর