বরিশাল লাইভ

ঢাকা, ডিসেম্বর ১৪, ২০১৬

প্রকাশ : ডিসেম্বর ১৪, ২০১৬ , ৩:৪৩ অপরাহ্ণ
জানুয়ারিতে কুয়াকাটায় তিন দিনব্যাপী বিচ কার্নিভাল

দক্ষিণাঞ্চলের সাগরকন্যা খ্যাত কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকতে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ‘বিচ কার্নিভাল’। তিনদিন ব্যাপী এ আয়োজনে  থাকছে দেশি-বিদেশি পর্যটকদের নানা আয়োজন।

কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকতকে বিশ্বের কাছে তুলে ধরতে এ আয়োজন। থাকবে স্থানীয় বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

সমুদ্র সৈকতে ঘুড়ি ওড়ানো, বালু ভাস্কর্য প্রদর্শনী, বলিখেলা, সার্ফিং, প্যারাসেইলিং, ফানুস ওড়ানো ও ডিজে শোসহ নানা আয়োজনে মাতোয়ারা থাকবে পর্যটকরা, এমনটাই প্রত্যাশা বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডের।

আগামী ১২, ১৩ ও ১৪ জানুয়ারি সাগরকন্যায় চলবে বিচ কার্নিভাল। সবার জন্য এ অনুষ্ঠান উন্মুক্ত থাকবে। বিচ কার্নিভালের মাধ্যমে কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকতের নানাদিক তুলে ধরা হবে। থাকবে গুণী শিল্পীদের পরিবেশনা।

বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডের

প্রধান নির্বাহী (সিইও) আখতারুজ জামান খান কবির বলেন, কক্সবাজারের পর এবার কুয়াকাটায় বিচ কার্নিভাল অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। এবারের বিচ কার্নিভাল আরও আকর্ষণীয় করে সাজানো হবে।

তিনদিনব্যাপী এ বিচ কার্নিভালে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান মেননের উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে।

কুয়াকাটার বেলাভূমি বেশ পরিচ্ছন্ন। ভৌগলিক অবস্থানের কারণে এ সৈকত থেকেই কেবল সূর্যোদয় আর সূর্যাস্তের দৃশ্য উপভোগ করা যায়। সৈকতের পূর্ব প্রান্তে গঙ্গামতির বাঁক থেকে সূর্যোদয় সবচেয়ে ভালোভাবে দেখা যায়। আর সূর্যাস্ত দেখার উত্তম জায়গা হল কুয়াকাটার পশ্চিম সৈকত।

কুয়াকাটার সৈকত প্রায় ১৮কিলোমিটার দীর্ঘ। সৈকত লাগোয়া পুরো জায়গাতেই আছে দীর্ঘ নারিকেল গাছের সারি।

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর