বরিশাল লাইভ

ঢাকা, জানুয়ারি ১১, ২০১৭

প্রকাশ : জানুয়ারি ১১, ২০১৭ , ৭:২৫ অপরাহ্ণ
অবশেষে নলছিটির ইউএনও বদলী

ঝালকাঠি প্রতিনিধি :: অবশেষে ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহ মো. কামরুল হুদাকে বদলী করা হয়েছে। ঘুষ, দুর্নীতি, অনিয়ম ও অশালীন আচরণের অভিযোগ এনে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের দাবির মুখে তাকে বদলী করা হয়।

বরিশাল বিভাগীয় কমিশনার মো. গাউস ‘জনসার্থে বদলীর’ কারণ দেখিয়ে তাকে বরগুনার পাথরঘাটা উপজেলায় যোগদানের নির্দেশ দিয়েছেন বলে

আজ বুধবার দুপুরে ঝালকাঠি জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সংস্থাপন শাখা থেকে জানা গেছে। মঙ্গলবার বিকেলে বিভাগীয় কমিশনারের সাক্ষর করা এ সংক্রান্ত একটি চিঠি ঝালকাঠি জেলা প্রশাসকের কাছে আসে।

গত সোমবার (৯ জানুয়ারি) উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের কক্ষে মাসিক আইন-শৃঙ্খলা সভায় ১০ জন জনপ্রতিনিধি ইউএনওকে অপসারণের দাবি জানান। তাকে নলছিটি থেকে অন্যত্র বদলী না করা পর্যন্ত উপজেলা পরিষদের কোন কর্মকান্ডে যোগদান না করার ঘোষণা দেন জনপ্রতিনিধিরা। এর আগে গত ২৯ ডিসেম্বর ইউএনওর

অপসারণ দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল, মানববন্ধন ও তাঁর কার্যালয় ঘেরাও করে জনপ্রতিনিধিরা। তারা ইউএনও বিরুদ্ধে জেলা প্রশাসকের কাছে লিখিত অভিযোগ দেন।

জনপ্রতিনিধিরা অভিযোগ করেন, এডিপির কাজের বিলে সই করানো জন্য বরাদ্দের পাঁচ পারসেন্ট টাকা নেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা। তাকে টাকা না দিলে বিলে সই করেননা তিনি। বিজয় দিবসের অনুষ্ঠান করার নামে ইটভাটা মালিকদের কাছ থেকে চাঁদা আদায় ও মোবাইল কোর্টের নামে নিরিহ ব্যবসায়ীদের হয়রানি করার অভিযোগও রয়েছে ইউএনও বিরুদ্ধে। এছাড়াও জনপ্রতিনিধি ও গন্যমান্য ব্যক্তিদের সঙ্গে অশোভন আচরণেরও অভিযোগ করা হয় ইউএনওর বিরুদ্ধে।

নলছিটির কুলকাঠি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এইচ এম আখতারুজ্জামান বাচ্চু বলেন, ইউএনওর বিরুদ্ধে আমাদের আন্দোলন সফল হয়েছে। তাকে বরিশাল বিভাগীয় কমিশনার স্যার পাথরঘাটায় বদলী করেছেন। উপজেলার সকল জনপ্রতিনিধিদের মাঝে স্বস্তি ফিরে এসেছে।

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর