বরিশাল লাইভ

ঢাকা, জানুয়ারি ১২, ২০১৭

প্রকাশ : জানুয়ারি ১২, ২০১৭ , ১:০৪ অপরাহ্ণ
হাথুরুসিংহের ‘স্মার্ট’ বাংলাদেশ

হোটেল লবিতে এদিকে-সেদিকে থাকা খেলোয়াড়দের দেখে বুকটা যেন ভরে যাচ্ছিল চন্ডিকা হাথুরুসিংহের। এত স্মার্ট ক্রিকেট দল তিনি নাকি এর আগে দেখেননি। পোশাক-আশাকে সবাই কেতাদুরস্ত। চলাফেরায়ও আছে ঠাটবাট।

ঠিক ওই সময় তাসকিন আহমেদ হেঁটে যাচ্ছিলেন পাশ দিয়ে। দীর্ঘদেহী তাসকিন খয়েরির মধ্যে সাদা ছোপ ছোপ ব্লেজার পরেছেন। হাথুরুসিংহের দলের ‘স্মার্টেস্ট’ ক্রিকেটার বললে ভুল হবে না। কোচ নিজেও অবশ্য কম যান না। কনকনে ঠান্ডা হাওয়ার মধ্যে সন্ধ্যায় ওয়েলিংটনের তাপমাত্রা নেমে এসেছে ১৩-১৪ ডিগ্রিতে। অথচ স্কাই জিনসের সঙ্গে কোচের গায়ে কিনা শুধু একটা সাদা ফুলহাতা শার্ট আর মাথায় একটা ক্যাপ।

শুধু পোশাক-আশাকের স্মার্টনেস দেখেই মুগ্ধ নন কোচ। মাঠের পারফরম্যান্সে মাঝেমধ্যে উত্থান-পতন হলেও খেলোয়াড়দের ক্রিকেটীয় চিন্তার রীতিমতো ভক্ত মনে হলো কোচকে। এদিক দিয়ে এই ক্রিকেটাররা তাঁদের অগ্রজদের চেয়ে হাজার মাইল এগিয়ে আছে বলে ধারণা কোচের এবং সে ধারণা থেকেই ভবিষ্যদ্বাণী, ‘এই প্রজন্ম বাংলাদেশের ক্রিকেটকে নতুন উচ্চতায় নিয়ে যাবে।’

হাথুরুসিংহের সঙ্গে যখন এসব কথা হচ্ছিল, দল টিম ডিনারে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে। তার আগে রিজেস ওয়েলিংটন হোটেলের লবিতে গাড়ির অপেক্ষায় সবাই। খেলোয়াড়েরা এদিক-সেদিক দাঁড়িয়ে গল্প করছিলেন। মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ আর সাকিবকে দেখা গেল সপরিবারে। সাকিবের সঙ্গে অবশ্য শুধু স্ত্রীই আছেন। কন্যা ঢাকায় দাদির কাছে। এ নিয়েই সেদিন কথা প্রসঙ্গে সাকিব জানালেন, ‘ও আমাদের আর কতক্ষণ পায়! দাদির কাছেই ভালো থাকে।’

একালের ক্রিকেটারদের জীবন এ রকমই। খেলার যাযাবর। আজ এই শহর তো কাল ওই শহর, আজ এই হোটেল তো কাল আরেকটা। দল বেঁধে থাকতে থাকতে খেলোয়াড়দের মধ্যেই তৈরি হয়ে যায় পারিবারিক বন্ধন। পরিস্থিতির দাবিতে পরিবারের চেয়েও শক্ত হয়ে ওঠে সেটা।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে বেসিন রিজার্ভে আজ প্রথম টেস্ট শুরু। পরশুর ঘন সবুজ উইকেটে কাল সবুজ ভাব কিছুটা কম মনে হলো। তবে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন উইকেটে দেখে এসে বললেন, ‘ঘাস তো কাটেনি, শুইয়ে রেখেছে।’ আজ ম্যাচ শুরুর আগের অবস্থা দেখা ছাড়া তাই হলফ করে বলা যাচ্ছে না বেসিন রিজার্ভের উইকেট আসলে শুরুতে কতটা সবুজ থাকবে। তবে সত্যি সত্যি ঘাস ছেঁটে কিছুটা কমানো হলে সবুজ উইকেটের আতঙ্ক বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানদের কিছুটা কমবে।

আপনারা যাঁরা ভোরবেলাতেই টেলিভিশন খুলে টেস্ট দেখতে বসে গেছেন, তাঁরা নিশ্চয়ই পত্রিকার পাতায় এসব কথা পড়ে নতুন কিছু খুঁজে পাচ্ছেন না। খেলাই যেখানে শুরু হয়ে গেছে আরও আগে, সেখানে আর

adv-1327513911
আগের দিনের উইকেটের বর্ণনা! অনলাইন পাঠকদের কথা আলাদা। যদিও সব পাঠকের জন্যই নতুন তথ্য আছে, বেসিন রিজার্ভের উইকেট সবুজ হলেও সেই সবুজ ভাব বেশির ভাগ সময়ই অস্থায়ী। ব্যাটসম্যানরা যা একটু ঝামেলায় পড়েন প্রথম দিনই, দ্বিতীয় দিন থেকেই উইকেট একটু একটু করে হাসতে থাকে তাদের দিকে। শুরুতেই তাড়াহুড়া না করে সেই হাসির জন্য অপেক্ষা করলে শেষটা মধুরই হয় সাধারণত। বাংলাদেশ দলের ব্যাটসম্যান মুমিনুল হকের পর্যবেক্ষণও তাই, ‘এখানে আপনি শুরু থেকেই মারতে পারবেন না। অপেক্ষা করতে হবে।’

গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে হওয়া বেসিন রিজার্ভের সর্বশেষ টেস্টটার কথাই ধরুন। প্রথম দিনের ধাক্কা সামলাতে না পেরে প্রথম ইনিংসে ১৮৩ রানে অলআউট হয়ে গিয়েছিল নিউজিল্যান্ড। দুই দল মিলে প্রথম দিনে ১৩ উইকেট হারালেও দ্বিতীয় দিনে অস্ট্রেলিয়া হারায় মাত্র ৩ উইকেট। অ্যাডাম ভোজেসের ডাবল সেঞ্চুরি আর উসমান খাজার সেঞ্চুরি প্রথম ইনিংসে ৫৬২ রান এনে দেয় অস্ট্রেলিয়াকে। অস্ট্রেলিয়া টেস্ট জিতেছিল ইনিংস ও ৫২ রানে। এ মাঠের সাম্প্রতিক অন্য টেস্টগুলোর চিত্রনাট্যও প্রায় এগিয়েছে একইভাবে। ‘গ্রিন টপ’ কাজে লাগাতে টসে জেতা দল বেশির ভাগ সময়ই আগে বোলিং করে। এরপর ব্যাটসম্যানদের আরাম।

প্রথম টেস্টের একাদশ নিয়ে যা একটু সিদ্ধান্তহীনতা ছিল, সেটা উইকেটের আচরণ কী না কী হয়, তা ভেবেই। তামিম ইকবালকে নিয়ে শঙ্কার মেঘটা কেটে গেছে। ওয়েলিংটনের এক হাসপাতালে তাঁর বাঁ হাতের আঙুলের স্ক্যান করানো হয়েছে, কোনো চিড় ধরা পড়েনি। সুতরাং ধরেই নেওয়া যায় বাঁহাতি ওপেনার একাদশে আছেন। আজ সকালে ঘাস কম মনে হলে সাকিব আল হাসানের সঙ্গে বিশেষজ্ঞ স্পিনার হিসেবে মেহেদী হাসানের দলে থাকাটাও নিশ্চিত। তবে কাল নেটে সৌম্য সরকারের দীর্ঘক্ষণ ব্যাটিং বলল, কোচ তাঁকেও তৈরি রাখতে চান। পেসারদের মধ্যে তাসকিন আহমেদ ও শুভাশিসের অভিষেক নিশ্চিত ছিল কাল রাত পর্যন্ত। আরেক পেসার রুবেল হোসেন না কামরুল ইসলাম, সেটাই ছিল প্রশ্ন। টেস্টে রুবেল কতটা লম্বা সময় ধরে বোলিং পারবেন, সেটা নিয়ে সংশয় আছে খোদ হাথুরুসিংহের। তাঁর ভোট নাকি কামরুল ইসলামের দিকেই ছিল। কিন্তু সেটা হলে দুই অভিষিক্ত পেসারের সঙ্গে সবচেয়ে অভিজ্ঞ পেসারটিও হবেন মাত্র দুটি টেস্ট খেলার অভিজ্ঞতাসম্পন্ন। বেসিন রিজার্ভ পেসারদের উইকেট হলে সেটা এমন অনভিজ্ঞ পেস আক্রমণ নিয়ে খেলতে নামাটা কি বোকামি হবে না?

এই প্রশ্নের উত্তরও এখন পত্রিকার পাঠকদের মোটামুটি জানা। একদল ‘স্মার্ট’ ক্রিকেটারের কোচ হাথুরুসিংহে বোকাই বনেছেন, নাকি তিনিও আসলে ‘স্মার্ট’ কোচ!

আপনার মন্তব্য

সর্বশেষ খবর