বরিশালে র‌্যাব-পুলিশের পৃথক অভিযানে মাদক ও টক্কনাথ সহ ১২ জন আটক

আপডেট : March, 17, 2017, 2:21 pm

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ বরিশাল নগরীতে  মাদক বিক্রির চক্রের ৫ নারী সদস্য সহ ৮জনকে আটক করেছে নগর গোয়েন্দা পুলিশ। গত বৃহস্পতিবার সকাল থেকে রাত পর্যন্ত নগরীর বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে আটক ৮ জনের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে ৮০ বোতল ফেন্সিডিল, ১০৫১ পিস ইয়াবা এবং ২৫ গ্রাম গাঁজা।

এছাড়া আজ শুক্রবার সকালে পৃথক অভিযানে নগরীর লঞ্চঘাট থেকে একটি টক্করনাথ প্রাণী সহ মনির হোসেন হাওলাদার ও বাবুল আকন নামে দুই জনকে আটক করে নগর গোয়েন্দা পুলিশ। আটক দুইজন বাড়ি খাগড়াছড়ি জেলার মানিকছড়ি উপজেলায়। তারা বিরল প্রজাতির ওই প্রাণী পাঁচার ব্যবসার সঙ্গে জড়িত বলে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছে।

অন্যদিকে বৃহস্পতিবার বিকেলে বরিশাল-ঢাকা মহাসড়কের বাবুগঞ্জের রহমতপুর এলাকায় ১৬২০ পিস ইয়াবা সহ ২জনকে আটক করে র‌্যাব।

নগর গোয়েন্দা পুলিশের মাদক বিরোধী অভিযানে আটককৃতরা হলো- শাকিল খান সেন্টু ও তার স্ত্রী তাহমিনা বেগম, রিপন ডাকুয়া, হারিছুর রহমান রাজিব, শাহনাজ সাথী, সুমি, সালমা আক্তার ও রোজি

আক্তার রিমি।

গতকাল সকালে নগর ডিবি পুলিশ কার্যালয়ে মেট্রোপলিটন পুলিশের মুখপাত্র সহকারী কমিশনার মো. নাসির উদ্দিন বলেন, সেন্টু ও তার স্ত্রী চিহিৃত মাদক ব্যবসায়ী। আটক অপর নারী সহ অন্যরা সেন্টুর মাদক খুঁচরা বাজারে বিক্রি করে। সেন্টুর বিরুদ্ধে এর আগেও বরিশাল এবং ঝালকাঠী থানায় ৫টি মামলা রয়েছে।

নগর গোয়েন্দা পুলিশের সহকারী কমিশনার নাসির উদ্দিন জানান, বৃহস্পতিবার সকালে নগরীর হাতেম আলী কলেজ চৌমাথা এলাকা দিয়ে মোটর সাইকেলে যাওয়ার সময় রিপন ডাকুয়া ও রোজি আক্তার রিমিকে আটক করে তাদের কাছ থেকে ৫০ বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধার করা হয়। ওই দুই জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তারা জানায় যে, ওই ফেন্সিডিলের মালিক সেন্টু। তারা বাহক হিসাবে ক্রেতাদের কাছে পৌঁছে দিচ্ছিলেন। রিমি ও রিপনের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী নগরীর ব্রাউন কম্পাউন্ড ও গোরাচাঁদ দাস রোডে অভিযান চালিয়ে সেন্টু সহ অন্যান্যদের আটক এবং অন্যান্য মাদকদ্রব্য উদ্ধার করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে মোট ৭টি মামলা দায়ের করেছে নগর গোয়েন্দা পুলিশ।

 

Facebook Comments