বিএনপিপন্থি জিয়া উদ্দিন সিকদার, মীর জাহিদ, সৈয়দ আকবরসহ ৬ কাউন্সিলর বরখাস্ত

আপডেট : March, 28, 2017, 7:45 pm

স্টাফ রিপোর্টার
বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের বিএনপিপন্থি ৬ কাউন্সিলরকে বরখাস্ত করেছে স্থানীয় সরকার মন্ত্রনালয়। আজ মন্ত্রনালয়ের আদেশ বরিশাল সিটি কর্পোরেশনে এসে পৌঁছেছে। বরখাস্তের বিষয়টি স্বীকার করেছেন সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ ওয়াহিদুজ্জামান। তবে মেয়র আহসান হাবিব কামাল বলেছেন তিনি এ বিষয়ে কিছু জানেন না। বরখাস্তকৃত কাউন্সিলররা হলেন : ২৫নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর জিয়াউদ্দীন সিকদার, ২৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ফিরোজ আহমেদ, ৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সৈয়দ আকবর, ৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর হারুন অর রশিদ, ১৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মীর জাহিদুল কবির জাহিদ, ২৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ফরিদউদ্দীন হাওলাদার। বরখাস্তকৃত ৬ কাউন্সিলরই মহানগর বিএনপির গুরুত্বপূর্ন পদে রয়েছেন। এদের মধ্যে জিয়াউদ্দীন সিকদার মহানগর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক, ফিরোজ আহমেদ সহ-সভাপতি। সৈয়দ আকবর ও মীর জাহিদুল কবির যুগ্ম সাধারন সম্পাদক, ফরিদউদ্দীন হাওলাদার কৃষি বিষয়ক সম্পাদক এবং হারুন অর রশিদ মহানগর বিএনপির সদস্য ও উপজেলা যুবদলের সভাপতি। উল্লেখিত কাউন্সিলরদের বিরুদ্ধে নাশকতার অভিযোগসহ বিভিন্ন মামলায় চার্জশীটভূক্ত আসামী হওয়ায় মন্ত্রনালয় সাময়িক বরখাস্ত করেছে বলে জানিয়েছেন প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ওয়াহিদুজ্জামান। বিসিসি সূত্র থেকে জানা গেছে, গত বিসিসি নির্বাচনে বিএনপি ও জামায়াতপন্থী ২৫ জন কাউন্সিলর নির্বাচিত হন। এদের মধ্যে বেশীরভাগ কাউন্সিলর হচ্ছেন বিএনপি

ও জামায়াতের বড় বড় পদে অধিষ্ঠিত। এ কারণে নির্বাচন পরবর্তী সরকার বিরোধী জ্বালাও-পোড়াও আন্দোলন বেশীরভাগ কাউন্সিলদের সংযুক্ত থাকতে হয়েছে। তাছাড়া নাশকতার ঘটনার সাথেও তারা সম্পৃক্ত থাকায় বিএনপি ও জামায়াতের ১১ কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা দায়ের হয়েছে। সরকারী বিরোধী জ্বালাও পোড়াও মামলায় চার কাউন্সিলরকে অভিযুক্ত করে চার্জশীট দেয়া হয়। এরা হচ্ছেন ঃ ১৮নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও মহানগর বিএনপি’র যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মীর একে জাহিদুল কবির, ২৪নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও মহানগর বিএনপি’র সহ-সভাপতি ফিরোজ আহমেদ খান, ২৫নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও মহানগর বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক জিয়াউদ্দিন সিকদার, ২৬নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও মহানগর বিএনপি ফরিদ উদ্দিন হাওলাদার। এছাড়াও কাউন্সিলর হারুন অর রশিদ ও সৈয়দ আকবর বেশ কয়েকটি মামলার আসামী। ওই মামলাগুলো চলমান রয়েছে। সরকারী বিরোধী আন্দোলন সংগ্রাম চলাকালীন দপদপিয়া ব্রিজের ঢালে গ্যাসের সিলিন্ডার ভর্তি ট্রাকে অগ্নিসংযোগের ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় ওই চার কাউন্সিলরকে অভিযুক্ত করে সম্প্রতি চার্জশীট দেয়া হয়। এছাড়া ঢাকাগামী লঞ্চ ও আদালতে অগ্নিসংযোগ মামলায় কাউন্সিলর জিয়াউদ্দিন সকিদার ও জাহিদুল করিম জাহিদকে অভিযুক্ত করে আরো একটি চার্জশীট দেয়া হয়। বাকী ৪ কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে সরকার বিরোধী আন্দোলন সংগ্রামের ঘটনায় পুলিশের দায়েরকৃত একাধিক মামলা চলমান।

Facebook Comments