এবার দক্ষিণাঞ্চল থেকে কলকাতা যাওয়ার রুটের অনুমোদন

আপডেট : April, 3, 2017, 4:08 pm

বাংলাদেশ থেকে কলকাতায় যাওয়ার নতুন রুট প্রস্তাবের খসড়ায় অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিপরিষদ। সোমবার সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সম্মেলন কক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিপরিষদ বৈঠকে এ অনুমোদন দেওয়া হয়। বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

শফিউল আলম বলেন, ‘মন্ত্রিপরিষদ সভায় ভারতের সঙ্গে সইয়ের জন্য ‘এগ্রিমেন্ট বিটুইন দ্য গভর্নমেন্ট অব দ্য পিপলস রিপাবলিক অব বাংলাদেশ অ্যান্ড দ্য গভর্নমেন্ট অব দ্য পিপলস রিপাবলিক অব ইন্ডিয়া ফর দ্য রেগুলেশন অব মোটর ভেহিক্যাল প্যাসেঞ্জার ট্রাফিক বিটুইন দ্য টু কান্ট্রিজ’ এবং ‘প্রোটোকল অন অপারেশন অব প্যাসেঞ্জার বাস সার্ভিস বিটুইন ঢাকা ইন বাংলাদেশ অ্যান্ড কোলকাতা ইন ইন্ডিয়া ভায়া খুলনা ইনটার্মস অব দ্য অ্যাফোরমেনশনড এর খসড়া অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এ চুক্তির আওতায় এখন কলকাতায় যাওয়ার নতুন রুট ঢাকা-মাওয়া-গোপালগঞ্জ-খুলনা-যশোর-বেনাপোল হয়ে কলকাতায়।

তিনি আরও বলেন, ‘এছাড়াও বৈঠকে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র নীতিমালা-২০১৭ এর খসড়ায় অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। সুস্থ ধারার চলচ্চিত্র নির্মাণ করতে ২০টি উদ্দেশ্য সামনে রেখে এ আইন করা হয়েছে।’

উদ্দেশ্যগুলোর মধ্যে রয়েছে- চলচ্চিত্রের মধ্যে মুক্তিযুদ্ধের

আসল চেতনার প্রতিফলন, ভাষা ও সংস্কৃতির প্রতিফলন, দেশপ্রেমের প্রয়াস, সব ধর্মের প্রতি শ্রদ্ধা, ধর্ষণের ছবি বা দৃশ্য না দেখানো, নারী ও শিশুদের প্রতি সহিংসতা বাড়ে এমন ধরনের দৃশ্য না দেখানো, সংলাপে কুরুচিপূর্ণ শব্দ বাদ দেওয়া, চলচ্চিত্র আমদানি-রফতানি করতে তথ্য মন্ত্রণালয়ের একজন অতিরিক্ত সচিবের নেতৃত্বে ১১ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা, ১৫ সদস্যের জাতীয় পরামর্শক কমিটি গঠন, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ড নামের সেন্সর  শব্দের পরিবর্তে সার্টিফিকেশন সিস্টেম করা এবং যৌথ নির্মাণ উৎসাহিত করা হবে। এছাড়াও প্রত্যেক জেলায় তথ্য ভবন নির্মাণ করা হবে যেখানে একটি সিনেপ্লেক্স থাকবে। এ সিনেপ্লেক্সে চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হবে।

শফিউল আলম বলেন, ‘সরকার ২৩ জুলাই তারিখটিকে জাতীয় পাবলিক সার্ভিস দিবস হিসেবে ঘোষণা করেছে। এ দিনটিকে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের পরিপত্রের ‘খ’ শ্রেণির দিবস হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। আন্তর্জাতিকভাবে এ দিবসটি পালিত হয় ২৩ জুন, কিন্তু বাংলাদেশে এই দিনে অনেক দিবস পালিত হওয়ায় ২৩ জুলাই পালিত হবে। এছাড়া ভারত ২১ এপ্রিল এবং থাইল্যান্ড ১ এপ্রিল এ দিবসটি পালন করা হবে।’

Facebook Comments