পটুয়াখালীতে গৃহবধূ নির্যাতণ,চেয়ারম্যানসহ চার জনের বিরুদ্ধে মামলা

আপডেট : February, 28, 2017, 8:23 pm

পটুয়াখালী প্রতিনিধি:গত ২৫ ফেব্রুয়ারী সদর উপজেলার ছোট বিঘাই ইউনিয়ন পরিষদে আদালতে দায়ের করা একটি নারী নির্যাতন মামলা উঠিতে নেয়ার জন্য প্রকাশ্যে চেয়ারম্যান ও তার লোকজন কর্তৃক এক গৃহবধূকে নির্যাতণের ঘটনায় চেয়ারম্যানসহ চার জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। সোমবার রাতে নির্যাতনের শিকার গৃহবধূ তাসলিমা বেগম বাদি হয়ে মামলাটি দায়ের করেন।

মামলার আসামীরা হলেন, ছোটবিঘাই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি আলতাব হাওলাদার, ৮নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ সভপতি আজিজ মৃধা ও সাধারন সম্পাদক আলাল মহরি এবং হামেদ মৃধা।

মামলার বাদী তাসলিমা বেগম জানান, খোরপোষের অভিযোগ এনে গত বছরের ১৬ মে তাসলিমা তার স্বামী মজিবর প্যাদাকে আসামী করে পটুয়াখালী নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় পুলিশ তাসলিমার স্বামীকে গ্রেফতার করলেও

ছোটবিঘাই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলতাব হাওলাদার মিমাংসার কথা বলে মজিবরকে মুক্ত করে নিয়ে যান।

অনেক কালক্ষেপনের পরে গত ২৫ ফেব্রুয়ারী মিমাংসার জন্য উভয় পক্ষ সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদে হাঝির হয়। এসময় চেয়ারম্যান ও শালিশগন তাসলিমাকে অলিখিত স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর দিতে বলেন। এতে তাসলিমা রাজি না হওয়ায় উল্লেখিত মামলার আসামীরা তাকে মারধোর করেন। এসময় স্থানীয় ইমরান মাহমুদ নামে এক যুবক মারধোরের ঘটনা তার ব্যবহৃত মোবাইল দিয়ে ভিডিও করলে তার কাছ থেকে তা ছিনিয়ে নিয়ে তাকেও মারধোর করেন ছোটবিঘাই ইউনিয়ন শ্রমিকলীগ নেতা রুহুল আমীন।

এদিকে মারধোরের ঘটনায় চেয়ারম্যানসহ তার সাঙ্গপাঙ্গদের আসামী করে থানায় মামলা করায় তাসলিমার পরিবারকে গ্রাম ত্যাগ করার হুমকী দেয়া হয়েছে বলে জানান তাসলিমা ও তার ভাই নাসির। বর্তমানে তাসলিমা পটুয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের সার্জারী বিভাগে চিকিৎসাধিন রয়েছেন।

Facebook Comments