ঈদ বাজার: গাউনের দাম ৩৫ হাজার!

আপডেট : June, 18, 2017, 5:45 pm

কাপড় কিনে সেলাই করে ঈদ জামা বানানোতে অনেকেরই অনীহা এখন। এর চাইতে ঈদের আগে সাজানো গোছানো শোরুম থেকে রেডিমেড ঈদ পোশাক কিনতেই স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করছেন ক্রেতারা। তাই দেশি-বিদেশি বিভিন্ন ব্র্যান্ডের দোকানগুলোতে উপচে পড়া ভিড় এখন। এসব শো-রুমের পোশাকের দামও আকাশছোঁয়া।

স্মার্টেক্স এর এই গাউনের দাম ধরা হয়েছে ৩৫ হাজার টাকা

শনিবার রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেল, মার্কেটের সাধারণ দোকানগুলোর চাইতে বিভিন্ন নামীদামী ব্র্যান্ডের শো-রুমগুলোতে ক্রেতাদের ভিড় বেশি। বসুন্ধরা সিটি শপিং কমপ্লেক্সের আড়ং এর শো-রুমে গিয়ে দেখা গেল প্রচণ্ড ভিড়। এখানে পাঞ্জাবির দাম ১২ হাজার টাকা পর্যন্ত।  শাড়ি ২ হাজার টাকা থেকে শুরু করে ২০ হাজার টাকার মধ্যে পাওয়া যাবে। তবে জামদানি শাড়ি বিক্রি হচ্ছে ৬০ হাজার টাকায়। আড়ং এর বিক্রয়কর্মী সানজিদা জানান, মেয়েদের থ্রি-পিস ২ হাজার থেকে শুরু করে ১৫ হাজার টাকার মধ্যে বিক্রি হচ্ছে। মো. মহসিন নামে বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের এক কর্মকর্তা জানান, এখানে দাম বেশি হলেও কাপড়ের মান ও ডিজাইন ভালো। তাই এখান থেকে ঈদের কাপড় কেনা হয়।

.

দেশি পোশাক কিনতে ক্রেতারা ঢুঁ মারছেন দেশী দশে...

বসুন্ধরা সিটি মার্কেটের দেশী দশে

প্রচণ্ড ভিড় লক্ষ করা গেছে। দেশাল এর বিক্রয়কর্মী জেনি জানান, তাঁত, সুতি ও অ্যান্ডি কটনের শাড়ি পাওয়া যাচ্ছে দেশালে। দাম ৯০০ টাকা থেকে ২ হাজার ৫০০ টাকার মধ্যে। তিনি জানান, মূলত বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রী ও মধ্যবিত্তরা এখানে আসেন শপিং করতে।  ইয়োলো এর শো-রুমে পাঞ্জাবি ১ হাজার ৯০০ থেকে শুরু করে ২ হাজার ৪০০ টাকার মধ্যে পাওয়া যাচ্ছে। থ্রি-পিসের দাম ৩ হাজার টাকা থেকে শুরু করে ৭ হাজার টাকার মধ্যে। ইনফিনিটিতে পাঞ্জাবি ২ হাজার থেকে শুরু করে সাড়ে ৭ হাজার এবং শাড়ি সাত হাজার টাকার মধ্যে পাওয়া যাবে।

.

রেডিমেড পোশাক কিনতে ব্র্যান্ড পছন্দ করছেন ক্রেতারা

তবে ব্যতিক্রম দেখা গেল স্মার্টেক্স-এ। এখানে ঈদ উপলক্ষে লেডি গাউন নামক পোশাকের দাম ধরা হয়েছে ২০ হাজার থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ ৩৫ হাজার ৫০০ টাকা। শো-রুমের ক্যাশিয়ার বিপ্লব বলেন, ‘অন্যান্য দোকানের ভারতীয় কাপড় ও ডিজাইনের ছড়াছড়ি থাকলেও আমাদের শো-রুমে একেবারে নিজস্ব তৈরি এই লেডি গাউন। রোজার প্রথম দিকে অনেকগুলো বিক্রি হয়ে গেলেও এখনও বেশ কিছু রয়েছে।’ একই শো-রুমে আসা শারমিন নামে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী জানান, এখানে অন্যান্য শো-রুমের তুলনায় ব্যতিক্রম এই লেডি গাউন। তবে দাম অনেক বেশি।

Facebook Comments