[english_date], [bangla_day]

মঠবাড়িয়ায় প্রতিবেশী হত্যায় একজনের যাবজ্জীবন

আপডেট: June 26, 2019

পিরোজপুরে মঠবাড়িয়া উপজেলার উদয়তারা বুড়িরচর গ্রামের কৃষক হানিফ মাতুব্বরকে (৪০) হত্যার দায়ে মনির মাতুব্বর (৪৫) নামের এক প্রতিবেশীকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। পাশাপাশি তাঁকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও ছয় মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার বিকেলে পিরোজপুরের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ সামছুল হক এ রায় ঘোষণা করেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত মনির মাতুব্বরের বাড়ি উপজেলার উদয়তারা বুড়িরচর গ্রামে। রায় ঘোষণার সময় তিনি অনুপস্থিত ছিলেন। নুর ইসলাম, মামুন মাতুব্বর ও মাছুম মাতুব্বর নামে তিনজন খালাস পেয়েছেন।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণ ও আদালত সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার উদয়তারা বুড়িরচর গ্রামের মনসুর মাতুব্বরের ছেলে হানিফ মাতুব্বরের সঙ্গে প্রতিবেশী মনির মাতুব্বরের জমি নিয়ে বিরোধ ছিল। ২০০৯ সালের ৫ মার্চ রাত ১১টার দিকে হানিফ মাতুব্বর এক আত্মীয়ের বাড়ি থেকে নিজের বাড়ি যাচ্ছিলেন। এ সময় আগে থেকে হানিফ মাতুব্বরের বাড়িতে ওত পেতে থাকা মনির মাতুব্বরসহ কয়েক ব্যক্তি হানিফ মাতুব্বরকে হত্যার উদ্দেশ্যে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে আহত করেন। হানিফ মাতুব্বরের চিৎকার শুনে আত্মীয়-স্বজনেরা তাঁকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। এরপর উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৭ মার্চ দিবাগত রাত তিনটায় হানিফ মাতুব্বর মারা যান। এ ঘটনায় পরের দিন নিহত হানিফ মাতুব্বরের ভাই সিদ্দিক মাতুব্বর বাদী হয়ে মনির মাতুব্বরকে প্রধান আসামি করে চারজনের বিরুদ্ধে স্থানীয় থানায় মামলা করেন। ওই বছরের ৩১ অক্টোবর মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মঠবাড়িয়া থানার তৎকালীন উপপরিদর্শক (এসআই) মো. আবদুল মালেক চারজনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

নিহত হানিফ মাতুব্বরের বড় ভাই আবদুল কুদ্দুস মাতুব্বর বলেন, ‘এ রায়ে আমরা খুশি হতে পারিনি। তিন আসামির খালাস পাওয়ায় আমরা অবাক হয়েছি। সাজাপ্রাপ্ত আসামি মনির মাতুব্বর ঘটনার পর থেকে পলাতক। শুনেছি তিনি পালিয়ে মালয়েশিয়া চলে গেছেন।’

রাষ্ট্রপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন সহকারী সরকারি কৌঁসুলি (এপিপি) জহুরুল ইসলাম।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন