[english_date], [bangla_day]

সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালের আগুন নিয়ন্ত্রণে

আপডেট: February 15, 2019

রাজধানীতে শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আগুন সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে এসেছে। একটি ভবনে আগুন লেগেছে। ফায়ার সার্ভিসের মহাপরিচালক (ডিজি) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব) আলী আহমেদ খান এ কথা জানান। এ ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করেছে ফায়ার সার্ভিস।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা পৌনে ছয়টার দিকে হাসপাতালের একটি ভবনে আগুনের সূত্রপাত হয়। এতে রোগী ও স্বজনদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ শুরু করেন।

আগুন লাগার পরে হাসপাতালের সামনের মাঠে নেওয়া এক রোগীকে দেখছেন চিকিৎসকেরা। ঢাকা, ১৪ ফেব্রুয়ারি। ছবি: খালেদ সরকারআগুন লাগার পরে হাসপাতালের সামনের মাঠে নেওয়া এক রোগীকে দেখছেন চিকিৎসকেরা।

ফায়ার সার্ভিসের মহাপরিচালক আলী আহমেদ খান বলেন, হাসপাতালের তৃতীয় তলার স্টোররুম থেকে আগুনের সূত্রপাত বলে ধারণা করা হচ্ছে। ঘটনার পর পরই ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ শুরু করেন। রাত সাড়ে আটটার দিকে আগুন পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়েছে।

এর আগে প্রত্যক্ষদর্শী ইসমাইল নামের এক ব্যক্তি হাসপাতালের একটি ভবন থেকে ধোঁয়া উড়তে দেখেন। তিনিই প্রথম ফায়ার সার্ভিসে খবর দেন। তাঁর খবরের পরপরই ফায়ার সার্ভিসের ইউনিট সেখানে আসে। তবে শুরুতেই পানি পাচ্ছিল না ওই ইউনিট। পরে কৃষি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের পুকুর থেকে পানি তুলে আগুন নেভানোর কাজ শুরু করে।

অগ্নিকাণ্ডের পর রোগীদের সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে। ছবি: খালেদ সরকারঅগ্নিকাণ্ডের পর রোগীদের সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে।

আগুন লাগার পরপরই রোগীদের হাসপাতালের ভবন থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়। অনেক রোগীকেই হাসপাতালের সামনের সড়কে দেখা যায়।

শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ ছাত্র ও ছাত্রলীগের নেতা কর্মীদের সেখান থেকে রোগীদের সরিয়ে নিতে এবং আগুন নেভানোর কাজে সহায়তা করতে দেখা গেছে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বলছে, সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে আগুন লাগার পর বেশ কিছু রোগীকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তবে রোগীদের কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।
হাসপাতালের বাইরে উদ্বিগ্ন মানুষের ভিড়। ছবি:খালেদ সরকারহাসপাতালের বাইরে উদ্বিগ্ন মানুষের ভিড়।

এ দিকে ঢামেক হাসপাতালের জরুরি বিভাগের আবাসিক চিকিৎসক আলাউদ্দিন বলেন, আমাদের এখানে রোগীদের অসুস্থতার ধরন অনুসারে সরাসরি সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডে ভর্তি করা হচ্ছে। জনবল বাড়ানো হয়েছে। আনসার সদস্যদেরও কাজে লাগানো হয়েছে ও যথাসাধ্য সেবা দেওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে। এ ছাড়া অ্যাম্বুলেন্সগুলো সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ফায়ার সার্ভিসের পরিচালক (অপারেশন) মেজর শাকিল নেওয়াজ রাত সোয়া আটটার দিকে বলেন, আগুন আমাদের নিয়ন্ত্রণের মধ্যে আছে। সামান্য একটু আগুন জ্বলছে, সেটি কিছুক্ষণের মধ্যে নেভানো সম্ভব হবে। আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে ১৬টি ইউনিট। তবে কোনো হতাহতের খবর এখনো পর্যন্ত পাওয়া যায়নি।

সোহরাওয়ার্দী হাসপাতাল থেকে রোগীদের ঢামেক হাসপাতালে নেওয়া হয়। ১৪ ফেব্রুয়ারি, ঢাকা। ছবি: আমিনুল ইসলামসোহরাওয়ার্দী হাসপাতাল থেকে রোগীদের ঢামেক হাসপাতালে নেওয়া হয়।

ঢাকা বেসরকারি অ্যাম্বুলেন্স সেবাদাতাদের সংগঠনের সভাপতি লিটন  বলেন, তাঁরা এখন পর্যন্ত অ্যাম্বুলেন্সে করে ৭৫ জন রোগীকে সরিয়ে নিয়েছেন। এ জন্য তাঁরা কোনো টাকা নিচ্ছেন না।

আগুন লাগার খবর পেয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক সেখানে গেছেন।সোহরাওয়ার্দী হাসপাতাল থেকে আনা এক রোগীকে ঢামেক হাসপাতালে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। ১৪ ফেব্রুয়ারি, ঢাকা। ছবি: আমিনুল ইসলামসোহরাওয়ার্দী হাসপাতাল থেকে আনা এক রোগীকে ঢামেক হাসপাতালে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

তদন্ত কমিটি
ফায়ার সার্ভিসের মহাপরিচালক আলী আহমেদ খান বলেন, অগ্নিকাণ্ডের কারণ জানতে ফায়ার সার্ভিসের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। ফায়ার সার্ভিসের উপপরিচালক অপারেশনকে প্রধান করে ওই কমিটি গঠিত হয়েছে। কমিটিকে পাঁচ কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন